* ভগবান শ্রীকৃষ্ণ *
! ! ! ! ! ! ! ! ! !

ঈশ্বরঃ পরমঃ কৃষ্ণঃ সচ্চিদানন্দবিগ্রহঃ ।
অনাদিরাদির্গোবিন্দঃ সর্ব্বকারণকারণম্।।

Krishna vs Arjun @ Gita Bhogoban Krishner Picture Bhogoban Krishner Picture
*

ভগবান শ্রীকৃষ্ণের পরমেশ্বরতার প্রমাণ:-

ব্রহ্মসংহিতায় প্রথম শ্লোকে বলা হয়েছে :

ঈশ্বরঃ পরমঃ কৃষ্ণঃ সচ্চিদানন্দবিগ্রহঃ৷
অনাদিরাদির্গোবিন্দঃ সর্বকারণকারণম্ ৷৷

"শ্রীকৃষ্ণ হচ্ছেন পরম পুরুষোত্তম পরমেশ্বর ভগবান৷ তাঁর শ্রীবিগ্রহ অর্থাৎ শ্রীদেহ সৎ-চিৎ-আনন্দ-ঘন, অর্থাৎ নিত্য শাশ্বত, চিন্ময় বা জ্ঞানময় এবং চিদানন্দময়৷ তাঁর কোনও আদি নেই৷ কারণ তিনিই অনাদির আদি , সব কিছুর উৎস৷ তিনিই সর্বকারণের আদি কারণ, সকল অস্তিত্বের পরম উৎস৷"

'বিগ্রহ

শব্দটির অর্থ দেহাবয়ব, শরীর৷ এছাড়াও ব্রহ্মসংহিতায় বলা হয়েছে (৫/৩১) :

আলোলচন্দ্রক লসদ্ বনমাল্যবংশী
রত্নাঙ্গদং প্রণয়কেলিকলাবিলাসম্৷
শ্যামং ত্রিভঙ্গললিতং নিয়্তপ্রকাশং
গোবিন্দং আদিপুরুষং তমহং ভজামি ৷৷

"দোলিত চন্দ্রক-শোভিত বনমালা যাঁর গলদেশে, বংশী ও রত্নাঙ্গদ যাঁর করদ্বয়ে, যিনি সর্বদা প্রণয়কেলিবিলাস যুক্ত, ললিত-ত্রিভঙ্গ শ্যামসুন্দর রূপই যাঁর নিত্য প্রকাশ সেই আদিপুরুষ গোবিন্দকে আমি ভজনা করি ৷৷"

ভগবান শ্রীকৃষ্ণ : সমস্ত গুণ-বৈশিষ্ট্যের উৎস

বুদ্ধির্জ্ঞানমসংমোহঃ ক্ষমা সত্যং দমঃ শমঃ ।
সুখং দুঃখং ভবোহভাবো ভয়ং চাভয়মেব চ ॥
অহিংসা সমতা তুষ্টিস্তপো দানং যশোহযশোঃ ।
ভবন্তি ভাবা ভূতানাং মত্ত এব পৃথগ্ বিধাঃ ॥ (ভ.গী-১০/৪-৫)

"বুদ্ধি, জ্ঞান, সংশয় ও মোহ থেকে মুক্তি, ক্ষমা, সত্যবাদিতা, ইন্দ্রিয়-সংয্ম, মনসংযম, সুখ, দুঃখ, জন্ম, মৃত্যু, ভয়, অভয়, অহিংসা, সমতা, সন্তোষ, তপস্যা, দান, য্শ ও অয্শ- প্রাণিদের এই সমস্ত নানা প্রকার ভাব আমার থেকেই উৎপন্ন হয়। "



ভীষ্মদেব (দ্বাদশ মহাজনের একজন)

'বিষ্ণু সহস্রনাম স্তোত্রে'

শ্রীকৃষ্ণকে বন্দনা করেছেন এইভাবে :

ন ক্রোধ ন চ মাৎসর্য ন লোভো নাশুভ মতিম্ ৷
ভবন্তি কৃতপুণ্যানাং ভক্তানাং পুরুষোত্তমে ৷৷
ধ্যায়ুঃ সচন্দ্রক নক্ষত্রকং দিশো ভূর্মহোদধিঃ৷
বাসুদেবস্য বীর্যেন বিধ্রুতানি মহাত্মনঃ ৷৷
সসুরাসুর গন্ধর্বং স যক্ষোরগ রাক্ষসম্৷
জগদ্বশে বর্ততেদং কৃষ্ণস্য সচরাচরম্ ৷৷

(বিষ্ণু সহস্রনাম-১৩/১৫)

"ভগবান শ্রীকৃষ্ণের পুণ্যকীর্তি ভক্তবৃন্দের কোনো প্রকার ক্রোধ নেই, মাৎসর্য (পরশ্রীকাতরতা) নেই; তাদের লোভ নেই, এবং অপরের অমঙ্গল উৎপন্ন করার কোনো দুর্মতিও নেই৷ সূর্য, চন্দ্র, নক্ষত্র, আকাশ, দিকসমূহ, পৃথিবী, মহাসাগর সবই কৃষ্ণের শক্তিতে স্থিত৷ সুরগণ (দেবদেবী), অসুর, গন্ধর্ব, য্ক্ষ, নাগ, রাক্ষস এবং অন্য সকল সচর ও অচর অর্থাৎ স্থাবর ও জঙ্গম জীব-সমাকুল এই সমগ্র ব্রহ্মাণ্ড সম্পূর্ণভাবে শ্রীকৃষ্ণের নিয়্ন্ত্রণাধীন৷"

------------------------------------------------

পরবর্তী বিবরণ

*ভগবান শ্রীকৃষ্ণ*
! ! ! ! ! ! ! ! ! !

সাইট-টি আপনার ভাল নাও লাগতে পারে, তবুও লাইক দিয়ে উৎসাহিত করুনঃ

শেয়ার করে প্রচারে অবদান রাখতে পারেন

Say something

Please enter name.
Please enter valid email adress.
Please enter your comment.